বৃহস্পতিবার, ১৬ জুলাই ২০২০, ০৮:২৪ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
গাজীপুরে কোনাবাড়িতে কিন্ডার গার্টেন স্কুলে পরীক্ষায় নেয়ায় ২০ হাজার টাকা জরিমানা বকশীগঞ্জে ভ্রাম্যমান আদালতে মুখে মাস্ক না থাকায় জরিমানা নীলফামারীর ডিমলা ট্রাংকের ভিতর লাশ, সন্দেহ পাহারায় পুলিশের বকশীগঞ্জে গরীবের পৈত্রিক জমি এখন প্রভাবশালীর দখলে ইসলামপুরে ডিগ্রীরচর তদন্ত কেন্দ্র পুলিশের অভিযানে ৭ জুয়ারী আটক বকশীগঞ্জে অবৈধ ড্রেজার মেশিন ধ্বংস করলেন ইউএনও কুড়িগ্রামে বন্যা পরিস্থিতির আরো অবনতি আড়াই লক্ষাধিক পানিবন্দি মানুষের চরম দুর্ভোগ পানিতে ডুবে ৩জনের মৃত্যু চিরিরবন্দরে “করোনায়” ইউপি চেয়ারম্যান ফজলুরের মৃত্যুঃ বিভিন্ন মহলের শোক বকশীগঞ্জে বঙ্গবন্ধুর ছবি ভাংচুরের ঘটনায় বঙ্গবন্ধু পরিষদের প্রতিবাদ সভা কুড়িগ্রামে সব চর পানির নিচে, ২ লাখ মানুষের দুর্ভোগ

জামালপুরে আগাম বন্যা ফসলের ব্যাপক ক্ষতি

রিপোর্টারঃ
  • প্রকাশের সময় | মঙ্গলবার, ২ জুন, ২০২০
  • ৬১ বার পঠিত
ফসলের ব্যাপক ক্ষতি

জামালপুরে গত কয়েক দিনের বৃষ্টি আর পাশবর্তী দেশ থেকে নেমে আসা পাহাড়ী ঢলে যমুনা নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়েছে। এতে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়ে ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে।

জামালপুর জেলার দেওয়ানগঞ্জ, ইসলামপুর, মেলান্দহ ও মাদারগঞ্জ উপজেলায় পাহাড়ী ঢলে যমুনার পানি বৃদ্ধি পেয়ে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়ে প্রায় কয়েকশ একর পাকা ধান, পাট, আখ, কাউন, বিভিন্ন সবজির খেত পানিতে তলিয়ে গেছে।

বিশেষ করে দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার বাহাদুরাবাদ, চিকাজানী, চুকাইবাড়ি ইউনিয়ন। ইসলামপুর উপজেলার কুলকান্দি, বেলগাছা, চিনাডুলি, নোয়ারপাড়া ও সাপধুরি ইউনিয়ন। মেলান্দহ উপজেলার ঘোষেরপাড়া ও ঝাওগড়া ইউনিয়ন, রৌমারী বিলের ধান। মাদারগঞ্জ উপজেলার গাবেরগ্রাম, বনচিথুলিয়া, চাঁদপুর, চর চাঁদপুর এবং বালিজুড়ি ইউনিয়নের তারতাপাড়া, শুভগাছা, চর শুভগাছা, মির্জাপুর, নাদাগারী, নাংলা এলাকার জমির ইরি বোরো পাকা ধান বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে। এসব এলাকায় শ্রমিকের অভাবে কৃষক ধান কাটতে পারছেনা। এতে ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে কৃষকের।

ইসলামপুরের চিনাডুলির কৃষক আনোয়ার জানান, তাদের খেতের পাকা ধান আগাম ব্যন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে। একদিকে কৃষি শ্রমিকের অভাবে মাঠের পাকা ধান তারা কাটতে পারছেনা।

একই এলাকার আসলাম রহিমুদ্দিন জানান, বৃষ্টি আর উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ী ঢলে যমুনা নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়ে আগাম বন্যা দেখা দিয়েছে। যমুনার পানি বৃদ্ধির ফলে নিন্মাঞ্চল পানিতে তলিয়ে যাওয়াই খেতের পাকা ধান তলিয়ে গেছে। এতে আমাদের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। অপর দিকে পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় কৃষকদের মধ্যে আতংক বিরাজ করছে।

এ ব্যাপারে চিকাজানী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মমতাজ উদ্দিনসহ, চিনাডুলি, সাপধুরি ইউনিয়নের চেয়ারম্যানরা জানান, এবার আগাম ব্যন্যায় কৃষকের ফসল তলিয়ে ব্যাপক ক্ষতির সম্ভবনা রয়েছে।

আর যেভাবে যমুনার পানি বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে তাতে কৃষকের বড় ধরনের ক্ষতির আশংকা রয়েছে।

জামালপুর কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক কৃষিবিদ আমিনুল ইসলাম জানান, যমুনার পানি বৃদ্ধিতে এ জেলার ফসলের তেমন কোন ক্ষতি হয়নি। আর যমুনার পানি ইতিমধ্যে কমতে শুরু করেছে। এ বন্যায় কৃষকের তেমন কোন ক্ষতি হবে না।

নিউজটি সেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই জাতীয় আরো সংবাদ

আজকের নামাজের সময়সুচী

সেহরির শেষ সময় - ভোর ৩:৫২ পূর্বাহ্ণ
ইফতার শুরু - সন্ধ্যা ৬:৫৩ অপরাহ্ণ
  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৩:৫৭ পূর্বাহ্ণ
  • ১২:০৮ অপরাহ্ণ
  • ৪:৪৩ অপরাহ্ণ
  • ৬:৫৩ অপরাহ্ণ
  • ৮:১৭ অপরাহ্ণ
  • ৫:১৯ পূর্বাহ্ণ

©২০১৮ সর্বস্তত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | দৈনিক লাল সবুজের ১১ নং সেক্টর অব বাংলাদেশ

কারিগরি সহযোগিতায় durjoybangla.com
themesba-lates1749691102